বাংলাদেশের যেকোন জায়গা থেকে নিতে পারবেন ক্রেডিট কার্ড

ক্রেডিট কার্ড কি,ক্রেডিট কার্ড,ক্রেডিট কার্ড পাওয়ার উপায়,ক্রেডিট কার্ড কাকে বলে,ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের নিয়ম,ক্রেডিট কার্ড কি?,সেরা ক্রেডিট কার্ড,ক্রেডিট কার্ড মানে কি,ক্রেডিট কার্ড করার নিয়ম,ক্রেডিট কার্ড এর সুবিধা,ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড কি,ক্রেডিট কার্ড এর অসুবিধা,ক্রেডিট কার্ড নেবার উপায়,ক্রেডিট কার্ড কিভাবে করব,ক্রেডিট কার্ড কোথাই পাবো,স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড,ক্রেডিট কার্ড পাওয়ার উপায়,ক্রেডিট কার্ড কিভাবে খুলে,ক্রেডিট কার্ড কিভাবে পাবো


এবি ব্যাংক ক্রেডিট কার্ড ক্যাম্পেইন ২০২২


যে কোন কোম্পানিতে মিনিমাম সেলারি 20000 টাকা।

আর সরকারি চাকরি ,ব্যাংকার,শিক্ষক তাদের সেলারি 15000 হলেই হবে।

ক্রেডিট_কার্ডে_থাকছে
কেনাকাটায় ছাড়।

১৮ Transaction কার্ড চার্জ ১০০% ফ্রি।(২য় বছর থেকে)
কেনাকাটায় ইন্টারেস্ট ছাড়া ৪৫ দিনে বিল পেমেন্টের সুবিধা
১২০০+ টির ও বেশী আউটলেট। আউটলেট থেকে পন্য কিনলে সর্বোচ্চ ৩৬ কিস্তি পর্যন্ত বিল পরিশোধের সুবিধা। ( অতিরিক্ত চার্জ ছাড়াই)
ফ্রী লাউঞ্জ বাংলাদেশ এয়ারপোর্টে।

ডুয়েল কারেন্সি কার্ড, সারা বিশ্বে ব্যবহারের সুবিধা।।
বিকাশ নগদে ADD Money একদম ফ্রি।

টাইটানিয়াম কার্ডে Meet & Greet সুবিধা।
হিডেন কোন চার্জ নেই।

প্রায়োরিটি পাস সুবিধা

যাদের স্যালারী ২০০০০/- টাকার উপরে ব্যাংকে যায় তারাই আবেদন করতে পারবেন। সল্প সময়ে এবং বিনা পরিশ্রমেই পেয়ে যাবেন আপনার কার্ড।

নোটঃ কারো চাকরি না থাকলেও আপনি কমপক্ষে ১ লাখ টাকার এফডিআর( Fixed Deposit) রেখেও আপনি ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা লিমিটে ক্রেডিট কার্ড নিতে পেতে পারেন।

( সাথে থাকছে ৫% ইন্টারেস্ট) ঢাকা সহ সারা বাংলাদেশের যেকোন জায়গা যারা থাকেন তারা ক্রেডিট কার্ড নিতে পারবেন ।
প্রয়োজনীয় কাগজ যা লাগবে:
১.ব্যাংক স্টেটমেন্ট লাস্ট ৬ মাস এর
২.সেলারি সার্টিফিকেট / পে স্লিপ আপডেট
৩.NID কার্ড এর ফটোকপি
৪.TIN সার্টিফিকেট সাথে Vat & Tax জমা দেয়ার কাগজের ফটোকপি
৫.অফিস ID কার্ডের ফটোকপি
৬.ভিজিটিং কার্ড (যদি থাকে)
৭.ছবি ২ কপি
যোগাযোগ করতে ইনবক্স করতে পারেন।

এবি ব্যাংক লিমিটেড
মতিঝিল ,ঢাকা

Share It